হৃদয়ে একাত্তর দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ ও নবাবগঞ্জ মুক্ত হয়েছিল ৬ ডিসেম্বর

35

রতন সিং, দিনাজপুর থেকে।। দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ এবং নবাবগঞ্জ উপজেলা ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয়েছিল। দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে উদযাপনের জন্য মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল কর্মসূচি গ্রহন করেছে।

দিনাজপুর বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের দায়িত্বে নিয়োজিত কমান্ডার ছন্দা পাল জানান, আগামিকাল ৬ ডিসেম্বর রোববার হানাদার মুক্ত দিবসটি স্বাস্থ্য বিধি মেনে যথাযথ মর্যাদায় উদযাপন করা হবে। আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপস্থিত থাকবেন নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ এমপি। বোচাগঞ্জ উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার জাফরউল্লাহ জানান, মহান মুক্তিযুদ্ধে ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর ভোর বেলায় বীরমুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিরোধের মুখে পাকহানাদার বাহিনী বোচাগঞ্জ উপজেলা ছেড়ে পালিয়ে যায়। ওই দিন দুপুরেই বীরমুক্তিযোদ্ধারা বোচাগঞ্জ উপজেলায় স্বাধীনতার বিজয় পতাকা উত্তোলন করে বোচাগঞ্জ উপজেলা হানাদার বাহিনী মুক্ত ঘোষণা করেন।

এদিকে আগামিকাল ৬ ডিসেম্বর দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলা হানাদার বাহিনী মুক্ত দিবস উপলক্ষে কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নাজমুন নাহার জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বল্প পরিসরে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল ভবনে দিবসটি উদযাপনে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। সভায় বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ এবং শহীদ পরিবারের সদস্যদের সম্বর্ধনা প্রদান করা হবে। নবাবগঞ্জ উপজেলা সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার দবিরুল ইসলাম জানান, মহান মুক্তিযুদ্ধে ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিরোধের মুখে পাক হানাদার বাহিনীর সদস্যরা ওই দিন ভোরেই নবাবগঞ্জ উপজেলা ছেড়ে পালিয়ে যায়। বীর মুক্তিযোদ্ধারা বিজয়ের পতাকা উত্তোলন করে উল্লাস প্রকাশ করেন।