জবরদস্তিমূলক বাড়ি দখলের চেষ্টা

36

(মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়)

মহোদয়,

যথাযথ সম্মান পূর্বক জানাচ্ছি যে, আমি শিল্পী রানী রায় একজন অসহায় ঋণগ্রস্ত বিধবা নারী। আমার স্বামী ভাষাণ চন্দ্র শীল যিনি দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে ৩ বছর পূর্বে মারা গেছেন। তাঁর চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করার জন্য আমাদেরকে ত্রিশ লক্ষ টাকার অধিক ঋণ গ্রহণ করতে হয়। আমার দুইটি ১৪ ও ৪ বছরের সন্তান রয়েছে। আমার বসতবাড়ি দাউদকান্দি সাহা পাড়া বাড়ি নং-৫৫৯, ওয়ার্ড নং-৫। উক্ত বাড়িতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেত্রী মোছা: লায়লা বেগম গত এপ্রিল মাসে সুকৌশলে কিছু ফার্নিচার রাখে। বর্তমানে আমি আমার স্বামীর করে যাওয়া ঋণ পরিশোধ করার জন্য আর কোন উপায় না পেয়ে আমার একমাত্র বসতবাড়িটি বিক্রির সিদ্ধান্ত নিই এবং সেই অনুযায়ী এক ব্যক্তির সাথে চুক্তিনামাও করি। এরপর মোছা: লায়লা বেগমকে তার ফার্নিচার গুলোকে সরারোর বারবার অনুরোধ ও তাগাদা দিই। কিন্তু তিনি আমার অসহায় অবস্থা বুঝতে পেরে ফার্নিচার গুলো জবরদস্তিমূলকভাবে রেখে বাড়ি দখল করার পাঁয়তারা করে। এবং আমার কাছ থেকে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। আমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছেন।

বিনীত প্রার্থনা যে, উক্ত ফার্নিচার গুলো সরানোর সুব্যবস্থা করা হলে আমি বাড়িটি বিক্রি করে সকল দেনা পরিশোধ করে আমার নাবালক এতিম সন্তানদেরকে নিয়ে বাঁচতে পারি।

বিনীত নিবেদক

শিল্পী রানী রায়

বাড়ি নং-৫৫৯, ওয়ার্ড নং-৫

থানা: দাউদকান্দি, জেলা: কুমিল্লা