গাইবান্ধায় কিশোরী অপহরণ

21

সংবাদদাতা।। গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ি থানার কুমেদপুর গ্রামের অনিল চন্দ্র সুত্রধরের অপ্রাপ্ত বয়স্ক ১৫ বছর বয়সী কন্যা অন্তরা রানী (কৃষ্ণা)কে গত ২১ জুলাই প্রতিবেশি মোহাম্মদ রায়হান মিয়া তার পরিবারের সদস্যদের যোগসাজশে অপহরণ করে। অনিল চন্দ্র সূত্রধর পলাশবাড়ি থানায় একটি ফৌজদারি মামলা (মামলা নম্বরঃ ২৩, তারিখঃ ২২/০৭/২০২১) দায়ের করেন।

অনিলবাবু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সুরক্ষা সেবা বিভাগ অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও অনুবিভাগ) বরাবরে এক লিখিত আবেদনে বলেছেন, অত্যন্ত দুঃখজনক হলেও সত্য ৫ দিন পেরিয়ে গেলেও আমার অপ্রাপ্ত বয়স্ক কিশোরী কন্যাকে পুলিশ এখন পর্যন্ত উদ্ধার করতে পারেনি। পুলিশ প্রশাসন একজন আসামীকে গ্রেফতার করলেও অন্যান্য আসামি এবং ঘটনায় সংশ্লিষ্ট অপরাধী কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

আবেদনে আরও বলা হয়, আসামি পক্ষ এবং তাদের আত্মীয় স্বজন কর্তৃক আমাদের বাড়িঘর ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ সহ নানামুখী হুমকিতে আমাদের পরিবার সহ মোট বসবাস করা ৫ ঘর হিন্দু পরিবার আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। এমতাবস্থায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখা ও আমাদের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং দ্রুত আমার অপ্রাপ্ত বয়স্ক কন্যাকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার পূর্বক দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনতে মহোদয়ের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সমন্বয়ক মনীন্দ্র কুমার নাথ বুধবার ঢাকা খেকে রংপুরের ডিআইজি’র সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলাপ করেছেন। তিনি বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন। জানা গেছে, মেয়েটিকে ঢাকার কোনো এলাকায় রাখা হয়েছে।