হিন্দুদের ইসলাম ধর্ম গ্রহণের নতুবা দেশ ছাড়ার হুমকি : এ কিসের আলামত

98

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।। গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীকে ঘিরে এর পূর্বাপর সময়ে উগ্রবাদী সংগঠন হেফাজত ইসলামের সন্ত্রাসী কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্তৃপক্ষ আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। ঠিক এমনি সময়ে, হিন্দু সম্প্রদায়কে টার্গেট করে তা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টাও শুরু হয়েছে। বাংলা নববর্ষের আগের দিন গত ১৩ এপ্রিল, ২০২১ মঙ্গলবার রাতের বেলা কোন এক সময়ে চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা, চন্দ্রনাথ মহাতীর্থের লোকনাথ মন্দির পরিচালনা কমিটির অন্যতম কর্মকর্তা মৃদুল অধিকারীর ঘরের দরজায় আরবি ও বাংলা ভাষায় এক চিরকুট রেখে গেছে দুর্বৃত্তের দল। এতে লেখা আছে ‘হিন্দুদের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করতে হবে নয়তো বা দেশ ছাড়তে হবে।’ স্থানীয় আরো দুজন বাসিন্দা অনুরূপ হুমকি সম্বলিত পত্র পেয়েছেন বলে জানা গেছে।

এ ঘটনা জানতে পেরে স্থানীয় থানা কর্তৃপক্ষ ও একই সাথে গোয়েন্দা সংস্থা তদন্ত শুরু করলেও গত ৪ দিনে এর কোন কূল কিনারা পেয়েছে বলে জানা যায়নি। নিকট অতীতেও বাংলাদেশের নানান জায়গায় এ ধরণের হুমকি দেয়া হয়েছে কখনও চিঠি দিয়ে, কখনো বা প্রকাশ্যে নানান ধর্মীয় মাহফিলে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তা প্রচারও করা হচ্ছে। এসব হুমকি আইনের দৃষ্টিতে গর্হিত অপরাধ যা বিশেষ ক্ষমতা আইন ‘৭৪-র আওতায় পড়ে। কিন্তু আজ পর্যন্ত এ জন্যে কোথাও কারো বিরুদ্ধে সরকারি কর্তৃপক্ষ কর্তৃক আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে তা জানা যায়নি।

সীতাকুন্ডের সাম্প্রতিক হুমকিসম্বলিত পত্র নিয়ে তদন্তের কথা বলে হলেও তা আলোর মুখ দেখবে কিনা ভবিষ্যৎই জানে। তবে অতীতের মত লোক দেখানো হলে তা যে বুমেরাং হয়ে দেখা দিবে, তা অনেকটা নিশ্চিত।

সরকার ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী কর্তৃপক্ষ তা গুরুত্বের সাথে ভেবে দেখবেন, শান্তিপ্রিয় জনগণ তা আশা করে।