মুক্তিযুদ্ধের শাশ্বত চেতনাকে আবারো চ্যালেঞ্জ করা হলো : ঐক্য পরিষদ

81

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক।। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি ঊষাতন তালুকদার, দুই ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. নিমচন্দ্র ভৌমিক ও নির্মল রোজারিও এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মনীন্দ্র কুমার নাথ এক যুক্ত বিবৃতিতে সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর হেফাজতে ইসলামের কর্মী-অনুসারীদের নির্বিচারে হামলা, বাড়িঘরে লুটপাট ও মন্দির ভাঙচুরের ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদ এবং দায়ী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) প্রদত্ত এই বিবৃতিতে বলা হয়, গোটা জাতি যখন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছিল, সে সময়ে সুনামগঞ্জে একটি গ্রামে সংখ্যালঘুরা হিং¯্র সাম্প্রদায়িক হামলার স্বীকার হলো। এর চেয়ে নিন্দনীয় ও বিপজ্জনক কিছু হতে পারে না। এই হামলার মাধ্যমে জাতির দুর্লভ এই মুহূর্ত এবং মুক্তিযুদ্ধের শাশ্বত চেতনাকে আবারো চ্যালেঞ্জ করা হলো। যেভাবে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের।

এই সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে ঐক্য পরিষদ নেতৃবৃন্দ ক্ষতিগ্রস্ত ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের যথাযথভাবে পুনর্বাসন ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।