মাকে অপহরণ করে ঢাকায় এনে চিকিৎসারত নাবালিকা মেয়েকে হাসপাতাল থেকে ছাড়: অতঃপর মেয়েকে নিয়ে উধাও

14

মাগুরা প্রতিনিধি ।। বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ মাগুরা সদর হাসপাতালের স্টাফ নার্স সুমিতা বিশ^াস ও ঢাকায় শিশু নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসারত তার নাবালিকা কন্যাকে অপহরণের জন্য দায়ী মাগুরা সদরের গোয়ালখালীর আরমান হোসেন রানা ও সঙ্গীয় দুর্বৃত্তদের অনতিবিলম্বে আইনের আওতায় এনে গ্রেফতার ও তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার জোর দাবি জানিয়েছে।

সংগঠনের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সংঘবদ্ধ চিহ্নিত দুষ্কৃতকারীরা গত সোমবার ২১ জুন, ২০২১ রাতের দায়িত্ব শেষে ভোরে মাগুরা থেকে শ্রীপুর উপজেলার দেবীনগরে তার বাসায় যাওয়ার পথে মাগুরার সদর হাসপাতালের স্টাফ নার্স সুমিতা বিশ^াসকে অপহরণ করে ঢাকায় নিয়ে আসে এবং ঢাকার শিশু নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসারত তার নাবালিকা মেয়েকে ছাড়িয়ে নিতে বাধ্য করে। এর পরবর্তীতে আরমান হোসেন রানা ও তার সঙ্গীয় দুর্বৃত্তরা মাকে ছেড়ে দিয়ে নাবালিকা মেয়েটিকে জোরপূর্বক অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গেছে। তার আর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনের পক্ষ থেকে ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়, অপহৃতা মেয়ের মা স্থানীয় থানায় মামলা করতে গেলে থানা কর্তৃপক্ষ অজানা কারণে তা গ্রহণ করেনি, যা নিতান্তই রহস্যজনক।

মাগুরার সর্বশেষ খবর, অপহরণকারী আরমানকে মেয়ে সহ থানায় ধরে আনা হয়েছে এস পি মহোদয়ের সহযোগিতায়। নবালিকা মেয়েকে মা’র হেফাজতে দেওয়ার ব্যবস্থা চলছে। অসুস্থ মেয়ে মা’র তত্বাবধানে ঢাকা নিরাময় কেন্দ্রে ফিরে যাবে চিকিৎসার জন্য। অরমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।