ভারতে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা খারিজ

5

ডেস্ক রিপোর্ট।। সাংবাদিক বিনোদ দুয়ার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সেই সঙ্গে ভারতের শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, ১৯৬২ সালের এক নির্দেশিকা অনুযায়ী দেশদ্রোহের মামলায় প্রত্যেক সাংবাদিকের সুরক্ষা পাওয়ার অধিকার রয়েছে। খবর আনন্দবাজারের।

গত বছর দিল্লিতে সংঘর্ষের ঘটনা নিয়ে অনুষ্ঠান করায় বিনোদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা করেন এক বিজেপি নেতা। তাঁর বিরুদ্ধে ভুয়া খবর ছড়ানো, মানহানি করা, পরিস্থিতি উত্তপ্ত করার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করা হয়। এই অভিযোগের পরে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন বিনোদ। সেখানেই এই মামলা খারিজ করে দিয়েছে শীর্ষ আদালত।

বিনোদ আরও আবেদন করেছিলেন, সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিক ১০ বছর সাংবাদিকতার অভিজ্ঞতা রয়েছে এমন কারও বিরুদ্ধে কোনও এফআইআর দায়ের করা যাবে না। সেই আবেদন অবশ্য খারিজ করেছে আদালত। বিচারপতি ইউ ইউ ললিত ও বিচারপতি বিনীত সরণের বেঞ্চ জানিয়েছে, এই ধরনের নির্দেশ দিলে আইন ব্যবস্থা বিঘিœত হবে। সেই সঙ্গে তাঁরা বলেন, দেশদ্রোহের মামলায় ১৯৬২ সালের নির্দেশিকা অনুযায়ী প্রত্যেক সাংবাদিকের অধিকার রয়েছে সুরক্ষা পাওয়ার। সে দিকেও আমাদের খেয়াল রাখতে হবে।

১৯৬২ সালের ওই মামলায় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, সরকারের বিরুদ্ধে কড়া ভাষায় সমালোচনা করার মানে হল সরকারের উন্নতির পথ তাকে দেখানো। এতে আইন ভাঙা হয় না। সেই নির্দেশের কথা উল্লেখ করেছেন বিচারপতিরা।