‘বাহাউদ্দিনকে মনোনয়ন দেওয়া হলে এর খেসারত দিতে হবে’

6

কুমিল্লা-৬ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিনের এক বক্তব্যের নিন্দা জানিয়েছেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা। এর প্রতিবাদে তারা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে বাহাউদ্দিনকে মনোনয়ন দেওয়া হলে এর খেসারত তাকে দিতে হবে।

সংগঠনটির দপ্তর সম্পাদক মিহির রঞ্জন হাওলাদারের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা বলা হয়। আ ক ম বাহাউদ্দিনের বক্তব্যসহ সাম্প্রতিক কিছু ঘটনার প্রতিবাদে শুক্রবার তারা সারা দেশে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের ডাক দিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত বুধবার বিকেলে কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে শারদীয় দুর্গাপূজার প্রস্তুতি উপলক্ষে আয়োজিত সভায় সংসদ সদস্য বাহাউদ্দিন ‘মদমুক্ত পূজা’ করার কথা বলেছেন। এর মাধ্যমে তিনি সাম্প্রদায়িক কটাক্ষমূলক বক্তব্য দিয়েছেন এবং নিজের সাম্প্রদায়িক চেহারা উন্মোচিত করেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মদ’ পুজোর আনুষঙ্গিক কোনো বিষয় কখনো ছিল না, আজও নেই এবং মদের জন্য পুজোর সংখ্যা বৃদ্ধি হচ্ছে বলে আ ক ম বাহাউদ্দিন যে উক্তি করেছেন তা তার ‘রাজনীতিক’ ও ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ পরিচয়কে জনসমক্ষে ভূলুণ্ঠিত করেছে।

সংগঠনটির তিন সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার, অধ্যাপক নিমচন্দ্র ভৌমিক ও নির্মল রোজারিও এবং সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্ত স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে  বলা হয়, আগামি সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে আ ক ম বাহাউদ্দিনকে মনোনয়ন দেওয়া হলে এর খেসারত তাকে দিতে হবে।

শুক্রবার সারা দেশে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল ডাক দেওয়ার বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মুন্সিগঞ্জের মেয়র ফয়সাল (বিপ্লব) এক সমাবেশে স্থানীয় সংসদ সদস্য মৃণাল কান্তি দাসকে ‘মালাউন’ বলে সাম্প্রদায়িক গালিগালাজ করেছেন। সংসদ সদস্য বাহাউদ্দিন পূজার্থী জনগণের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়েছেন। এ ছাড়া কুড়িগ্রামের চারণ কবি রাধাপদ রায়ের ওপর হামলা এবং বিভিন্ন জায়গায় মন্দিরে হামলা-ভাঙচুরের প্রতিবাদে এবং দুর্গাপূজার ছুটি তিন দিন করার দাবিতে এ কর্মসূচি পালন করা হবে। রাজধানীতে এ কর্মসূচি পালিত হবে ওই দিন বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে।