বাংলাদেশে গণহত্যার দায়ে পাকিস্তান বাহিনীর বিচার দাবি

7

চট্টগ্রাম থেকে সংবাদদাতা।। ২৫ মার্চ।। ৭১’র ২৫ মার্চ কালরাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর চালানো গণহত্যা আন্তর্জাতিক অপরাধ। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর যে সকল সেনা সদস্য এই গণহত্যার সাথে জড়িত তারা বিচারের মুখোমুখি হয়নি। তাই তাদের কৃত অপরাধের জন্য আন্তর্জাতিক আদালতে তাদের বিচারের সম্মুখীন করতে হবে।

ওপেন ডায়ালগ বাংলাদেশ, চট্টগ্রাম শাখার উদ্যোগে আজ ২৫ মার্চ বিকাল ৩টায় বৌদ্ধ মন্দির সড়কে একাত্তরের গণহত্যার নিন্দা জানিয়ে আয়োজিত আলোচনা সভা ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে বক্তাগণ একথা বলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি তাপস হোড়। প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জিনবোধি ভিক্ষু। দক্ষিণ চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের নেতা এ্যাড. প্রদীপ কুমার চৌধুরী’র সঞ্চালনায় আলোচনায়  বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক আলিউর রহমান, সাংবাদিক কাঞ্চন মহাজন, আওয়ামী লীগ নেতা ও বিশিষ্ট সমাজসেবী সাইফুর রহমান চৌধুরী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সঙ্গীত শিক্ষক জসীম মোস্তফা,আদিবাসী ফোরামের চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি শরৎ জ্যোতি চাকমা, দেবাশীষ রুদ্র প্রমুখ।

প্রধান অতিথি তাঁর ভাষণে পাকিস্তানিদের বর্বর গণহত্যার নিন্দা জানিয়ে একাত্তরের ২৫ মার্চকে ‘গণহত্যা দিবস ’ হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দাবি করেন। তিনি পাকিস্তানী সেনা বাহিনীর একাত্তরে হত্যাযজ্ঞ, ধর্ষণসহ সকল অমানবিক অপরাধের নিন্দা জানিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ইতিহাসের এই বর্বরতম গণহত্যার জন্য দায়ী পাকিস্তানি সেনাদের বিচারে তাদের এগিয়ে আসতে হবে। এই বর্বররা যদি বিচার এড়িয়ে যায় তাহলে মানবতা বলে কিছু থাকবে না।

আলোচনা সভাদেশে বিভিন্ন স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা শহীদদের স্মরণে প্রদীপ প্রজ্জ্বলনে অংশ নেন। পরে আলোর মিছিল এলাকা প্রদক্ষিণ করে।