বরগুণার আমতলীতে জমি দখলে নিতে হিন্দু পরিবারের ওপর হামলা

3

সংবাদদাতা।। বরগুণার আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী গ্রামে শনিবার (৭ আগস্ট) সকালে জমির দখল নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে এক হিন্দু পরিবারের উপর হামলা, শ্লীলতা হানির চেষ্টা, ঘর ভাংচুরসহ টাকা ও সোনা লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আমতলী থানায় ১১ জনের নাম উল্লেখসহ আরো অজ্ঞাত ২০-২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গুলিশাখালী ইউনিয়নের গুলিশাখালী গ্রামে ১ একর সরকারি বিরোধীয় জমির দ্বন্ধের জের ধরে মাধব চন্দ্র হাওলাদার নামে এক হিন্দু পরিবারকে মারধর, হামলা এবং গৃহবধূ কাজল রানীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা, টাকা ও সোনা লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার একই গ্রামের বারেক মাতুব্বর এর নেতৃত্বে জমি দখলে নিতে ২০-২৫ জন সন্ত্রাসী মাধব চন্দ্রের বাড়িতে ঢুকে হামলা করে। বাধা দিলে তারা মাধব চন্দ্রকে কিল ঘুষি লাথি মেরে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করে। মাধব চন্দ্রকে রক্ষার জন্য তার স্ত্রী কাজল রানী এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়।

এক পর্যায়ে তারা কাজল রানীর গলা এবং কান থেকে জোর পূর্বক সোনার চেইন, কানের দুল এবং ঘরে থাকা ব্যবসার নগদ ২ লক্ষ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

অভিযুক্ত বারেক মাতুব্বর হামলা, মারপিট এবং শ্লীলতাহানিসহ টাকা ও সোনার লুটের কথা অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, মাদব চন্দ্রের দখলীয় সরকারি জমি বন্দোবস্ত সূত্রে আমি মালিক। তারা জোর পূর্বক আমার জমি দখল করে আছে। গুলিশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট এইচ এম মনিরুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন, মারধরের খবর পেয়েছি। বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা চলছে।

আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহ আলম হাওলাদার বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে । এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।