পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের হুঁশিয়ারি

5

ডেস্ক রিপোর্ট।। নারদ কেলেঙ্কারি মামলায় দুই মন্ত্রী-সহ চারজনের গ্রেফতারি ঘিরে তুলকালাম কান্ড কলকাতায়। নিজাম প্যালেসে সিবিআই দফতরের সামনে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি। তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীর রীতিমতো খন্ডযুদ্ধ বেধে যায়। এই পরিস্থিতিতে রীতিমতো টুইটারে হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। টুইটারে রাজ্যপাল লিখেছেন, এই নৈরাজ্যের পরিণতি কী হতে পারে, আশা করি আপনারা সেটা বুঝতে পারছেন।

উল্লেখ্য, নারদ মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে ফিরহাদ হাকিম, মদন মিত্র, সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। এই ঘটনা ঘিরে উত্তাল বঙ্গ রাজনীতি। গ্রেফতারির প্রতিবাদে নিজাম প্যালেসে অবস্থানে বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ঘটনায় যেভাবে তৃণমূল কর্মীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন, তা নিয়ে রাজ্যপালের এই বার্তা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে পর্যবেক্ষক মহলের একাংশ। টুইট বার্তায় তাহলে কীসের ইঙ্গিত দিলেন রাজ্যপাল? তাহলে কি রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হতে পারে? এমন চর্চাই তুঙ্গে রাজ্য রাজনীতিতে।

টুইটারে রাজ্যপাল লিখেছেন, রাজ্যে নৈরাজ্য চলছে। পুলিশ-প্রশাসন নীরব। পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হচ্ছে। হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে পরিস্থিতি। আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে পদক্ষেপ করতে হবে। সরকারকে সাংবিধানিক নিয়মকানুন মেনে চলার কথা বলছি। টিভিতে দেখছি, সিবিআই অফিস লক্ষ্য করে ইট-পাথর ছোড়া হয়েছে। আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হচ্ছে। দর্শকের ভূমিকায় পুলিশ, দেখে করুণা হচ্ছে।

এদিকে, নারদ কেলেঙ্কারি মামলায় রাজ্যের দুই মন্ত্রী ও এক বিধায়ককে গ্রেফতারের ঘটনায় সিবিআই  আধিকারিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কলকাতার পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্রকে চিঠি দিল তৃণমূলের মহিলা কংগ্রেস। ফিরহাদ হাকিম, মদন মিত্র, সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের গ্রেফতারি অনৈতিক বলে চিঠিতে উল্লেখ করেছে তৃণমূল মহিলা কংগ্রেস।