চাঞ্চল্যকর মার্কিন তথ্য, পাকিস্তানের হিন্দু ও খ্রিস্টান নারীদের যৌনদাসী করে চীনে পাঠানো হচ্ছে

3

।। বিশেষ প্রতিনিধি।। পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের ওপর অত্যাচার ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা নিয়ে এবার চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এক মার্কিন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের হিন্দু ও খ্রিস্টান নারীদের ওপর চলছে অকথ্য অত্যাচার। তাদেরকে যৌনদাসী বা রক্ষিতা বানিয়ে পাঠানো হচ্ছে চীনে ।

ইউএস অ্যাম্বাসাডর অ্যাট লার্জ ফর ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডম, স্যামুয়েল ডি ব্রাউনব্যাক এই তথ্য জানিয়েছেন। মঙ্গলবার এক বিশেষ রিপোর্ট সামনে আনেন তিনি।

ওই রিপোর্টে তিনি জানান চীনের বিশেষ নাগরিকদের কাছে রক্ষিতা বানিয়ে পাঠানো হচ্ছে পাকিস্তানের হিন্দু ও খ্রিস্টান নারীদের। জোর করে যৌনদাসী হতে বাধ্য করা হচ্ছে তাদের।

স্যামুয়েল তার পর্যবেক্ষণে বলেন, এই ধরণের ঘটনার সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে, কারণ পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের কোনও নিরাপত্তা নেই। খুব সহজেই তাদের ওপর অত্যাচার চালিয়ে বা প্রাণের ভয় দেখিয়ে যে কোনও কাজ করিয়ে নেওয়া সম্ভব। পাক প্রশাসনের সম্পূর্ণ মদতেই এই ধরণের ঘটনা ঘটে থাকে।

স্যামুয়েল রিপোর্টে আরও জানান, আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা আইনের আওতায় পাকিস্তান অত্যন্ত দুর্বল রাষ্ট্র হিসেবে বিবেচিত। পাকিস্তানের সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তাহীনতা বেশ উদ্বেগজনক।

২০১৯ সালে সংবাদসংস্থা এপি জানিয়ে ছিল ৬২৯ জন পাক নারীকে চীনে পাচার করা হয়েছে যৌনদাসী হিসেবে। তাদের তালিকাও তুলে ধরেছিল ওই রিপোর্টে। মূলত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অসহায়তার সুযোগ নিয়ে এই ধরণের ঘটনা ঘটানো হচ্ছে।