চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে বিপুল ভোটে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এগিয়ে

4

সংবাদদাতা।। ২৭ জানুয়ারি।। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মোট ৭৩৫টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে রাত সাড়ে এগারোটা পর্যন্ত ঢাকায় প্রাপ্ত  ২০০টি কেন্দ্রের বেসরকারি ফলাফলে বিপুল ভোটে এগিয়ে রয়েছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরী। তিনি নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৭৭ হাজার ২৩২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির  প্রার্থী শাহাদাত হোসেন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ১০ হাজার ৫৯৮ ভোট।

এই ২০০ কেন্দ্রের ফলাফলে মেয়র পদে আম প্রতীকে আবুল মনজুর ১ হাজার ৮৬ ভোট, মোমবাতি প্রতীকে এম এ মতিন ৩৬৬ ভোট, হাতি প্রতীকে খোকন চৌধুরী ২০৩ ভোট, চেয়ার প্রতীকে ওয়াহিদ মুরাদ ১৮৭ ভোট, হাতপাখা প্রতীকে জান্নাতুল ইসলাম ১ হাজার ২৫ ভোট পেয়েছেন।

বিভিন্ন সূত্র ও সংবাদদাতারা বলেছেন, একজনের প্রাণহানি, দফায় দফায় সংঘর্ষ, পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, ভোট গ্রহণ স্থগিত, এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার মধ্য দিয়ে শেষ হয় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণ।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল আটটা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিকেল চারটা পর্যন্ত চলে। কেন্দ্র নিয়ন্ত্রণের জেরে কাউন্সিলর প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে একের পর এক সংঘর্ষের খবর আসতে থাকে। বিএনপি অভিযোগ করে, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা ভোটকেন্দ্র থেকে ধানের শীষের এজেন্টদের বের করে দিয়েছে। অন্যদিকে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে বিএনপি পরিকল্পিতভাবে হামলা করছে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেছে আওয়ামী লীগ।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে  মেয়র ও কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ২৩২ জন প্রার্থী। এবার ভোটারসংখ্যা ১৯ লাখ ৩৮ হাজার ৭০৬।

ভোট গ্রহণ শেষে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মোহাম্মদ আলমগীর বলেছেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে ভালো নির্বাচন হয়েছে। তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে নির্বাচনে সহিংসতার অনেক ঘটনা ঘটে। তবে চট্টগ্রামে কমই হয়েছে। দেশ উন্নত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটের প্রতি মানুষের অনীহাও বাড়ছে বলে মনে করেন সচিব।